Four Bengal Districts Red Zones

Four Bengal Districts Red Zones

পশ্চিমবঙ্গ সরকার সোমবার একটি তালিকা প্রকাশ করে জানিয়েছে, চারটি জেলা রয়েছে রেড জোনে। Four Bengal Districts Red Zones।

সরকারের তরফ থেকে বিভিন্নভাবে এই মহামারীকে প্রতিরোধ করার চেষ্টা করছে। এই চেষ্টাকে সফল করার জন্য জনগণের সহযোগিতা একান্তভাবে দরকার।

পশ্চিমবঙ্গ সরকার সোমবার একটি তালিকা প্রকাশ করে জানিয়েছে, চারটি জেলা রয়েছে রেড জোনে। Four Bengal Districts Red Zones।
Four Bengal Districts Red Zones

COVID-19 -এর প্রাদুর্ভাবের পরে কলকাতা, রেড অঞ্চল (Red zone) এবং মহানগরের ২৮৭ টি অঞ্চলকে কনটেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত করা গেছে।

উত্তর চব্বিশ পরগনা, হাওড়া এবং পূর্বা মেদিনীপুর জেলাগুলি কলকাতা ছাড়াও রেড জোন হিসাবে ঘোষণা করেছে।

আরো দেখুন: Vidyut Jammwal Create a Official YouTube Channel.

West Bengal Districts Red Zones

রাজ্য সরকারের প্রকাশিত তালিকায় এগারোটি জেলা কমলা অঞ্চল (Orange zone) হিসাবে চিহ্নিত হয়েছে, এবং আটটি সবুজ অঞ্চলে(Green zone) আছে।

কমলা অঞ্চলে(Orange zone):– দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা, হুগলি, পশ্চিম মেদিনীপুর, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, কালিম্পং, নদিয়া, জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং, মুর্শিদাবাদ ও মালদা।

সবুজ অঞ্চল(Green zone):- আটটি জেলা- আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, বীরভূম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া এবং ঝাড়গ্রাম।

কলকাতার প্রায় ২৭৭ টি অঞ্চল, যার বেশিরভাগ অংশ উত্তর ও মধ্য অংশে অবস্থিত ধারক অঞ্চল হিসাবে চিহ্নিত।

পূর্বা মেদিনীপুর জেলায় আটটি কনটেন্ট জোন ছিল, এর মধ্যে সেখান থেকে পাঁচটি অঞ্চল রয়েছে।

আধিকারিকের বক্তব্য

প্রধান সচিব রাজীব সিনহা জানিয়েছেন, ৯ই এপ্রিল থেকে নতুন কোনো COVID-19 সংক্রমণের খবর পাওয়া যায়নি।

উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলায়, ১৩ টি অঞ্চল থেকে কোনও COVID-19 ইতিবাচক কোনও রিপোর্ট পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, যদি কোনও অঞ্চল থেকে কমপক্ষে ২১ দিনের জন্য কোনও নতুন মামলা না পাওয়া যায় তবে সরকার সেখানে শিথিল করার কথা ঘোষণা করবে।

কেন্দ্রীয় হেলথ মন্ত্রকের মতে, রাজ্যে COVID-19-এর আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৬৭৪৯ জন।

সোমবার অবধি পশ্চিমবঙ্গে ২০ টি COVID-19 রোগী মারা গেছে এবং মোট ৬৩৩ টি মামলা এখনও রয়েছে।

এর মধ্যে ৫০৪-টি সক্রিয় মামলা এবং ১০৯ জন সুস্থ হয়ে উঠলে তাদের হাসপাতাল থেকে ছাড় দেওয়া হয়েছে।

আরো দেখুন: We don’t need No Education

পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান পরিস্থিতি

বর্তমান পশ্চিমবঙ্গে কর্ণ সংক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রায় ১০০০০ জন। তাতে ঠিক হয়েছে প্রায় ৪০০০ জন এবং এই মহামারিতে মৃত্যু ঘটেছে প্রায় ৫০০ জনের কাছাকাছি ।

পশ্চিমবঙ্গ সরকার আস্তে আস্তে লাকডাউনের সময়সীমা এবং তার বাধ্যবাধকতাকে শিথিল করছে।

জনসত্ত জনসাধারনর দিকে তাকিয়ে তাদের আর্থিক অবস্থার কথা চিন্তা করে সরকার করোনা আক্রান্ত জোন গুলিকে বিবেচনা করে খোলার ব্যবস্থা করে দিয়েছে।

বর্তমানের ভারতবর্ষে পঞ্চম লকডাউন চলছে আর তাতে প্রত্যেকটি রাজ্য সরকারকে তাদের অধিকারের রেখেছে এই পরিস্থিতিতে সিদ্ধান্ত নেওয়ার।

পশ্চিমবঙ্গ সরকার আগেই বিভিন্নভাবে লকডাউনকে ছেত্রীর করার এবং মহামারীকে কিভাবে প্রতিরোধ করা যায় তার কথা চিন্তা করে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

Leave a Reply